জামিন পেলেন সাংসদ মঞ্জুরুল

শিশু শাহাদাত হোসেন সৌরভ হত্যাচেষ্টা মামলায় গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সাংসদ মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন জামিন পেয়েছেন। সংসদ অধিবেশন চলাকালীন সময় পর্যন্ত এ জামিন বহাল থাকবে।

গাইবান্ধার অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম ময়নুল হাসান ইউসুফ আজ রোববার অন্তর্বর্তীকালীন এ জামিন মঞ্জুর করেন।

সাংসদের আইনজীবী সিরাজুল ইসলাম বলেন, মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন একজন সংসদ সদস্য। সংসদ অধিবেশন শুরু হচ্ছে আজ। তাঁর এই অধিবেশনে যোগ দেওয়া প্রয়োজন। এই তথ্য উল্লেখ করে সাংসদের জামিনের আবেদন করা হয়। আদালত সংসদ অধিবেশন চলা পর্যন্ত তাঁর জামিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে একই আদালত থেকে ৪ নভেম্বর সাংসদ মঞ্জুরুল বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাটের মামলায় জামিন পান। তবে ওই দিন শিশু শাহাদাত হোসেন সৌরভকে গুলি করে হত্যাচেষ্টার মামলায় তৃতীয় দফায় করা তাঁর জামিনের আবেদন নাকচ করে দেন আদালত। এ কারণে সাংসদ কারাগারেই ছিলেন।

চলতি বছরের ২ অক্টোবর সাংসদ মঞ্জুরুল গুলি করে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার গোপালচরণ গ্রামের শিশু শাহাদাত হোসেন সৌরভকে জখম করেন বলে এই মামলায় অভিযোগ রয়েছে। সুন্দরগঞ্জ থানায় মামলাটি করেন শাহাদাতের বাবা সাজু মিয়া। পরে ৭ অক্টোবর সাংসদসহ ১০ জনকে আসামি করে আরেকটি মামলা করেন উপজেলার শাহাবাজ গ্রামের হাফিজার মণ্ডল। তিনি মামলার এজাহারে বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ করেন। পরে ১৪ অক্টোবর রাতে রাজধানীর উত্তরার একটি বাসা থেকে সাংসদকে এই দুই মামলায় গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সূত্রঃ প্রথমআলো